Taking too long? Close loading screen.
Sale!

কুররাতু আইয়ুন

(1 customer review)

৳ 175.00 ৳ 140.00

ফোনে অর্ডারের জন্য ডায়াল করুন
ঢাকায় ডেলিভারি খরচ: ৳ 60.00
ঢাকার বাইরের ডেলিভারি খরচ: ৳ 100.00

“কুররাতু আইয়ুন” বইয়ের কিছু অংশঃ

লেখক শুরুতেই তুলে ধরেছেন লেখকের পরিবার ও মেয়ের যত্নে উনার স্ত্রী কত পরিশ্রম করে থাকে সকাল থেকে রাত অবধি। খাদিজার(লেখকের মেয়ের নাম) মায়ের কষ্ট তার বাবার(লেখকের) চোখে এইভাবে ধরা দিয়েছে - কোন অভিযোগ নেই, কোন অপারগতা নেই। সাময়িক বিরক্ত যে নেই, তা নয়। তবে তাতে দু'চামচ মমতা মেশানো থাকে।

এরপরেই লেখক আপনাকে নিয়ে যাবে আপনার ছোটবেলায় ঠিক একই ভাবে আপনার মা বাবা আপনাকে পরম যত্নে কোলে পিঠে করে মানুষ করেছে। মুহূর্তে মধ্যে মা বাবার জন্য আপনার হৃদয়ে ভালবাসার ঝড় উঠবে, ইনশাল্লাহ।

সন্তানের প্রতিপালনের জন্য লেখক মায়েদের কে দিয়েছে মানব শিল্পের মর্যাদা। কিন্তু এখানে সবচাইতে বড় বাধা হচ্ছে পশ্চিমা পুঁজিবাদী সমাজের দালাল গুলো তারা নারীদের শিখিয়ে দিয়েছে, ঘরে থাকো মানে তুমি অকম্না, বেকার। কিন্তু এখানেই তাদের মুখ বন্ধ করার জন্য শক্ত হাতে কলম ধরেছেন, আপনার চিন্তার জগৎকে নাড়িয়ে দিবে । যাতে করে আপনার স্ত্রী ঘরে থাকে বলে আপনি একটুও হীনমন্যতায় না ভোগেন। লেখকের আকুতি, ভাইজান - আপনার স্ত্রীর কারনে আপনার সন্তানের টিচার - খরচ, ডাক্তার-খরচ, ডে-কেয়ার খরচ, আরও কত খরচ বেঁচে যায়, সেটা চোখে পড়ে না। মাস শেষে যে টাকাটা আপনি ব্যাংকে রেখে স্বপ্নের জাল বোনেন, ভাই ওটাই আপনার স্ত্রীর ইনকাম। মানব শিল্পের পিছনে বেঁচে যাওয়া মূল্যটাই জমানোর মওকা মিলে আপনার।

একই সাথে লেখক নারীদের চাকরি - ব্যাবসা করার পক্ষে কর্ম পদ্ধতি খুব সুন্দরভাবে অবতারণা করেছেন - নারীকে পেশা নেবার অনুমোদন ইসলাম দেয়। তবে সে পেশা অফিসে পুরুষ কলিগদের সাথে ৯-৫টা পর্যন্ত দাসত্ব না। সেটা ঘরোয়
পরিবেশে, স্বাধীনভাবে, ইচ্ছেমতো, যে দিন ভালো লাগে পেশা করলাম, যে দিন ভালো লাগছে না, করলাম না এবং সৃষ্টিশীল কাজ---ডাটা এন্ট্রি বা কেরানিগিরি না।
এবং নারীবাদী এজেন্ডাগুলোতে মুসলিম মেয়েরা পা দেওয়ার মূল কারণ এবং এক্ষেত্রে আমাদের পুরুষেদের করনীয় গুলো কি কি তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কিছু পয়েন্ট তুলে ধরেছেন।

1 review for কুররাতু আইয়ুন

  1. Faruk Ahmed

    পশ্চিমা পুঁজিবাদ আমাদের শিখিয়ে দিয়েছে, ঘরে থাকো মানে তুমি অকম্মা, বেকার। তোমার স্ত্রী কী করে? কিছু করে না, হাউজওয়াইফ।
    .
    গর্দভ, তোমার স্ত্রী শিল্পী, মানবশিল্পী। পুঁজি কামানো-জমানো, বস্তু কেনা, ভোগ করাই জীবনের অর্থ-সার্থকতা-মন্ত্র; এই দাসত্বের চশমা খোলো, আর দুনিয়া দ্যাখো। যে টাকা কামায়, সে কম্মা আর যে টাকা বাঁচায়, সে অকম্মা, কিছু করে না! এই ছাগলপ্রজাতির সাইকোলজি থেকে বের হও, ভাইজান। আপনার স্ত্রীর কারণে আপনার সন্তানের টিচার-খরচ, ডাক্তার-খরচ, ডেকেয়ার খরচ, আরও কত খরচ বেঁচে যায়, সেটা চোখে পড়ে না। মাস শেষে যে টাকাটা আপনি জমা করে স্বপ্নের জাল বোনেন, ওটাই আপনার স্ত্রীর ইনকাম। মানবশিল্পের পিছনে বেঁচে যাওয়া মূল্যটাই জমানোর মওকা মেলে আপনার।
    .
    আর বোনেরা, ক্যারিয়ারের দাসত্ব কখনোই এই ঐতিহ্যবাহী নিপুণতম শিল্পের চেয়ে আরাধ্য হতে পারে না। পুঁজিবাদ আপনাদেরকে পুরুষের প্রতিযোগী বানিয়ে জব-মার্কেটে জোগান বাড়াতে চায়। এতে পুঁজিবাদের লাভ হয়। আপনারা পুরুষের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করছেন না, পুঁজিপতিদের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করছেন। যাতে কম পারিশ্রমিক দেওয়া লাগে, মুনাফা বেশি থাকে ‘জেন্ডার সমতা’র নামে সেই চালই চেলেছে ক্যাপিটালিজম। এটা আপনি যত সহজে বুঝে নেবেন, তত আপনার জীবন মসৃণ হবে, আনন্দদায়ক হবে।

    নিজ শিল্পীসত্তাকে বেখেয়াল বুয়ার হাতে তুলে দিয়ে, আপনি আনফিট একটা প্রজন্মের জন্ম দিয়ে যাচ্ছেন, আর কিছুই না। আয় করা আর ক্যারিয়ারিজমের বিষ এক না, ইসলাম আপনাকে আয় করতে নিষেধ করে না। কিন্তু ইসলাম নিজ শিল্পীসত্তাকে ব্যবহার করে মনের আনন্দে আপনাকে আয় করতে বলে, ঘরোয়া নিরাপত্তার সাথে। ইসলাম আপনার থেকে ৯টা-৫টা বাধ্যশ্রম নিতে চায় না। কেবল এই মানবশিল্পের খাতিরেই আপনাকে ইসলাম অব্যাহতি দিয়েছে রোজগারের বাধ্যবাধকতা থেকে, যুদ্ধের দায়িত্ব, শাসনের গুরুভার থেকে। ইসলাম মানব চায় না, মানুষ চায়। আর সেই মানুষ গড়ার শিল্পের শিল্পীরা কীভাবে জবাবিহি করবে আসন্ন নষ্ট প্রজন্মের কাছে, সেটাই দেখার বিষয়।
    পৃথিবীর তাবৎ মানবশিল্পীদের আমার সালাম।

    বই- কুররাতু আইয়ুন : যে জীবন জুড়ায় নয়ন
    লেখক – ডাঃ শামসুল আরেফীন
    সম্পাদক – আবদুল্লাহ আল মাসউদ
    পৃষ্ঠা সংখ্যায় – ১২০

Add a review

Your email address will not be published. Required fields are marked *

0
৳ 0.00
Your Cart
No product in the cart